শিরোনামহীন ভাবনা

পৃথিবী এগিয়ে চলছে সামনের দিকে। টেকনোলজির বিশ্বয়কর উন্নতি মানুষকে দিচ্ছে নিত্য নতুন সব আবিষ্কারের সংবাদ। যারা নিজেদের ছেলে মেয়ের দুষ্টামীতে অতি বিরক্ত কিংবা ভাবছেন ছেলেটিকে একটি সুবোধ বালক হিসেবে গড়ে তুলবেন হয়ত অদুর ভবিষ্যতে জিন মডিফিকেইশনের মাধ্যমে সেটিও সম্ভব হবে। হয়ত টাকা দিয়ে ইচ্ছেমত নিজেদের বাচ্চাদের বৈশিষ্ট্য পরিবর্তন করিয়ে নিতে পারবেন সহসাই। তবে এর কতটুকু পরিবর্তন সম্ভব সেটি হয়ত সময়ই বলে দিবে। তবে সম্প্রতি চায়নার একদল গবেষক থ্যালাসেমিয়ার জন্য দ্বায়ী মানব জিনকে মডিফাই করার গবেষনা শুরু করেছেন। যদিও তারা ১০০ ভাগ সফল হতে পারেনি এবং মানুষের জিন নিয়ে এ ধরনের গবেষনা রিসার্চ ইথিকস সমর্থন করে না তবে অদুর ভবিষ্যতে হয়ত কোন পাগলাটে গবেষক অসম্ভব কিছু হাজির করবেন সবার সামনে।

হয়ত আল্লাহ রাব্বুল আলামিনই মানুষকে সময়ের পরিবর্তনের অনেক কিছু বিষয়ে নলেজ দান করেন এভাবে সময়ের সাথে নলজের বৈচিত্রে নতুন নতুন প্রজন্ম নতুন ধরনের এক্সপেরিয়েন্সের সম্মুখীন হয়। আগে মানুষ যা অসম্ভব ভাবত আজ তার অনেক কিছুই সম্ভব আবার অনেক অসম্ভব অসম্ভবই থেকে গেছে। যেমন কিছুদিন আগে Sergio Canavero নামে ইতালীর এক গবেষক (annual conference of the American Academy of Neurological and Orthopaedic Surgeons (AANOS) ) অ্যামেরিকান এক কনফারেন্সে মানুষের মাথা প্রতিস্থাপনের পরিকল্পনা ব্যক্ত করেন। এর কত টুকুই বা সম্ভব সেটির সময় না আসলে হয়ত কেউ ধারনাই করতে পারবেনা। আজ থেকে ৪০০ বছর আগের কেউ হয়ত চিন্তায় করেনি ইন্টারনেট এবং ফেইসবুকের কথা।

বিশ্বাস-অবিশ্বাস, সম্ভব-অসম্ভবের দোলাচলে পৃথিবী এগিয়ে চলেছে তার গতিতে, আমরা নিজেদের জীবন ও মত-বিশ্বাস নিয়ে লড়াই করে সময়ের স্রোতে হারিয়ে ফেলছি নিজেদের। জীবন এক অদ্ভুত জিনিস, সবাইকে চলে যেতে হবে জেনেও আমরা অসীমের পথে টিকে থাকার সংগ্রামে কখনও হারছি কখনো বা জিতছি কখনো কাউকে ঠকিয়ে কখনো বা মিথ্যা অভিনয় করে। হয়ত মত-পথ-বিশ্বাস নামক জিনিসগুলোর মধ্যে মানুষ বেচে থাকার কারন খুজে পায় সবশেষে মত-পথ-বিশ্বাস হয়ত বেচে থাকে আমরা হারিয়ে যাই সময় নামক ব্ল্যাকহোলে। ৩০ পেরিয়ে তাই জীবনটাকে বড় অদ্ভূত মনেহয়। বসে বসে কিংবা ব্যস্ততার আড়ালে এক মহাসত্য নিজেদের নশ্বরতাকে আলিংগন করার জন্য আমরা ছুটছি হয়ত নিজেদের অজান্তে। সেই যাত্রাপথটা সবার মসৃণ হোক, মানবতার বিকাশে আমাদের বিলীনতা আগদের অস্তিত্বের জন্য আনন্দদায়ক হোক!

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s