সবাইকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা।

সবাইকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা। 

গেলো বছরের সময়গুলো ছিলো পারষ্পারিক অশ্রদ্ধা ও প্রতিহিংসামূলক কাজের চর্চা। ধর্মীয় চেতনাবোধ ও মানবতার অপমানের বছর। তাই আসুন নতুন বছরে আমরা সবাই একটি শপথ করি, পারষ্পারিক শ্রদ্ধাবোধ সম্পন্ন একটি সমাজ গঠনের। ধর্মীয় জ্ঞানের অভাবে আমরা মানুষের বাণীকে প্রচার করি, অথচ আমরা আমাদের প্রিয় নবীর বাণীগুলোকে সবার কাছে প্রচার করিনা। আমরা নিজেদের সঠিক পরিচয় অনুধাবন না করার কারনে, আমরা আমাদের রাজনৈতিক নেতাদের আদর্শিক নেতা মনেকরি এবং তাদের বানীকে নিজেদের আদর্শরুপে তুলে ধরার চেষ্টা করি। 

তাই আসুন নতুন বছরটাকে নিজেদের অতীত ঐতিহ্য জানার কাছে ব্যয় করি, আর সবক্ষেত্রে আমাদের প্রিয় নবী মুহাম্মদ (সাঃ) এর বাণী প্রচার করি। 

পাশাপাশি ইসলামী আন্দোলনের দাবিদারদের কাছে আমাদের কামনা, মানুষের আবেগকে কাজে লাগিয়ে নিজেদের ফায়দা বা নিজেদের সুবিধা আদায় করলে, ইসলাম প্রিয় এতবড় একটি জনগোষ্ঠির ভালোবাসা আদায় সম্ভব না। ইসলামের স্বর্ণযুগের শাসকরা দেশের নাগরিকদের সুবিধার চিন্তাই আগে করত, আর এই কারনে নিজেদের সবকিছু বিলিয়ে দিয়েছিলো মানুষের কল্যানে। কারন তারা এটা দেখাতে সমর্থ হয়েছিলো যে, তাদের জন্য আল্লাহই যথেষ্ঠ। কিন্তু লোকদের যা বলে বেরাই তা নিজেরা ভালোভাবে বিশ্বাস করিনা। আর করিনা বলেই আমরা ভবিষ্যতের চিন্তায় বড় ব্যাকুল। এই ভবিষ্যতের চিন্তা করতে গিয়েই বনীইসরাইল মান্না ও সালওয়া থেকে বঞ্চিত হয়েছিলো। আমরা মানুষকে ইসলামের কথা বলে লোভ দেখাই জান্নাতের অথচ সেই জান্নাতের চিন্তা করে আমরা সম্পদের লোভ-লালসা ত্যাগ করতে পারিনা। ইসলামী দাওয়াতি কাজের চেয়ে আমরা সম্পদের কাজে বেশি সময় নষ্ট করি। 

আর তাই বাংলার মাটিতে ৭১ বছর ইসলামী আন্দোলন করার পর ও একজন, ধর্মীয় গুরু তৈরী হয় না, সাধারন মানুষের সহমর্মিতা আদায় সম্ভব হয়না। তবে গত ৭১ বছরে আর্থিকভাবে সচ্ছল একটি ইসলামি দল তৈরী হয়েছে, আমরা এসি রুমে – বিশাল সম্মেলন কেন্দ্রে সম্মেলন করতে পারছি, আমরা অনেকেই অনেক সম্পদের মালিক হয়েছি। 

তবে এসবের পর যখন আমাদের প্রতিবেশি, আমাদের দেশের মানুষ না খেয়ে, শীতের কারনে মারা যায় তখন মনেহয় আমরা যা করছি সেটা মনেহয় প্রকৃত ইসলাম নয়। আর এ কারনে আমরা মানুষের কষ্ট বুঝতে পারছিনা আর মানুষ ও আমাদের ভালোবাসতে পারছেনা। সুতরাং নতুন বছরে আসুন যারা ইসলামী আন্দোলনের নামে মাঠ গরম করছি, তারা অন্তত এই শীতে কিছু মানুষের গা গরমের একটু ব্যবস্থা করি। এক বছর মহাসমাবেশ না করে, পল্টনে গরিবদের সমাবেশ করে সেই সমাবেশের টাকা গুলো বিলিয়ে দিন। কিছু না হোক , কিছু মানুষ অন্তত একবেলা পেটপুরে খেয়ে আল্লার কাছে দোয়া করবে। যতদিন না সাধারন মানুষের দোয়া আপনার-আমার দোয়ার সাথে একাত্নতা ঘোষনা করবে ততদিন ইসলামী আন্দোলন সমাবেশ কেন্দ্রে বন্দী থাকবে। 

মহান রাব্বুল আলামিন আমাদের সঠিক বুঝ দান করুন, নতুন বছরে আমাদের প্রত্যেককে এক একজন বীর মুসলিম হিসেবে কবুল করুন। মানুষের ভালোবাসা আদায়ে আমাদের তৌফিক দান করুন। আমাদেরকে প্রকৃত মুসলিম হিসেবে কবুল করুন। আমাদের দেশের সকল মানুষের উপর শান্তি দান করুন।

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s