দেশের রাজনীতির সংকট উত্তরণে কিছু ব্যক্তিগত চিন্তা

দেশের বর্তমান অবস্থা খুবই নাজুক। রাজনীতিকদের মাঝে যেমন পারস্পারিক শ্রদ্ধাবোধ নেই তেমনি সাধারন জনগনের মাঝে ও রাজনীতির উপর বিশ্বাসের ঘাটতি চরমভাবে লক্ষনীয়। এটি যেমন রাজনীতির জন্য খারাপ তেমনি দেশের স্থিতিশীলতা তথা সার্বিক উন্নয়নের জন্য বড় বাধা। পরিবার কেন্দ্রিক রাজনীতি হওয়ার কারনে রাজনীতিতে দুষ্টজনের উত্থান যেমন সহজ হয়ে গিয়েছে ঠিক অপর পক্ষে শিক্ষিতসমাজের রাজনীতি বিমূখতা আরো প্রবল হয়ে দাড়িয়েছে। যা একটি জাতির জন্য হুমকি হয়ে দাড়িয়েছে। আর এরুপ সংকটময় সময়ে সব দেশপ্রেমিক চিন্তাশীল মানুষের উচিত দেশের রাজনীতি নিয়ে চিন্তা করা। সব বিভেদ ভূলে এময় এসেছে ঘুরে দাড়াবার। সংকট যত প্রকট হয়, সমাধান তত দ্রুত হয়। শুধু প্রয়োজন উদ্যোগ গ্রহনের। বিভেদমূলক রাজনীতির নীতি রাজনীতির ময়দানে শুধু হিংসা আর বিদ্বেষ ছড়ায়। আর তাই সকল মতবাদের সমন্বয়ে একটি সময়োপযোগী মতবাদ এবং সকল মতের মানুষের অংশগ্রহনে সক্রিয় একটি দল ই পারে জাতিকে শান্তির বাণি শোনাতে।
“কারো সাথে বিদ্বেষ নয়, সবার সাথে বন্ধুত্ব” এরকম স্লোগান নিয়ে একটি দল গঠন এখন সময়ের দাবী। দেশে উপস্থিত রাজনৈতিক দলগুলো একটি বাস্তবমুখী, টেকসই এবং সময়োপযোগী রাজনৈতিক দল উপহার দিতে যেমন ব্যর্থ হয়েছে ঠিক তেমনি দেশের রাজনীতিকে আরো কলুষিত করেছে।
সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ আমাদের সোনার বাংলাদেশ। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ই আমাদের হাজার বছরের ঐতিহ্য। এটাকে অগ্রাহ্য করে মানুষকে একটি কাঠামোগত ভাবে এবং টেকসই রাজনৈতিক দল উপহার দেয়া সম্ভব না।
আমি কারো সমালোচনা করবোনা। সমালোচনায় কোন সমাধান নেই।
আমার যে প্রস্তাবনা এগুলো ভেবে দেখা যেতে পারে,

বর্তমান পরিস্থিতিতে একটি শিক্ষিত, আধুনিক, জাতিয়তাবোধে বিশ্বাসী এবং সকল মতের মিলন ঘটিয়ে একটি রাজনৈতিক দল গঠন করা যায় কিনা?
এটির জন্য যারা উপযুক্ত তাদের জন্যই লিখা। হয়ত আমার নিজের যোগ্যতা নেই। আমি শুধু আমার চিন্তা গুলো শেয়ার করছি।

১) ধর্মনিরপেক্ষতাবাদ এর বদলে সৃষ্টিকর্তায় বিশ্বাসী দিলে দেশের জনগনের যেমন কারো আপত্তি থাকবেনা, তেমনি তাদের দৃষ্টি আকর্ষন করা যাবে। কারন দেশের অধিকাংশ মানুষ সৃষ্টিকর্তাকে বিশ্বাস করে, সে হিন্দু কিংবা মুসলিম। সৃষ্টিকর্তা সবার। এখানে কোন সৃষ্টিকর্তার নাম উল্লেখ করার প্রয়োজন নেই। সবাই সবার ধর্ম স্বাধীনভাবে পালন করবে।

বাকি মতবাদগুলোকে ঠিক করে একটি সার্বজনীন দল গঠন।

যেখানে সকল মতের মানুষ থাকবে, এবং সকলের যোগ্যতা অনুযায়ী সহঅবস্থান নিশ্চিত করতে হবে।

বর্তমানে উপস্থিত রাজনৈতিক দলগুলোতে দুষ্টলোকের আধিক্যর কারনে, দেশের জনগনের স্বার্থ উপেক্ষিত থেকে যাচ্ছে। রাষ্ট্র জনগনের জীবনের নিরাপত্তা দিতে চরমভাবে ব্যর্থ হচ্ছে। অথচ যেখানে রাষ্ট্রের জন্মই হলো জনগনের জীবনের নিরাপত্তা দেয়া।
অনেকই হয়ত ভাবতে পারেন যে, ড. কামাল এবং বদরুদ্দোজা চৌধুরী তো দল গঠনের ডাক দিয়েছে। কিন্তু এটি এইতিহাসিক সত্য যে, এনারা জনগনের বিশ্বাস অর্জনে ব্যর্থ হয়েছেন। ফেইসবুকে ব্লু ব্যান্ডকল নামের যে গ্রুপ করা হয়েছে, সেখানেও রাজনৈতিক প্রতিহিংসামূলক পোষ্ট দেয়া হয়, যেটাতে প্রমান হয় যে, ওসব দিয়ে দেশের রাজনীতির গুনগত মান পরিবর্তন তথা জনহনের ভাগ্যোন্নয়ন ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি সম্ভব নয়।

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s